What is Bloging- Full information in Bangla

আমাদের দেশে জনসংখ্যা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমছে ইনকামের হার। অনেক লিখা-পড়া করে ডিগ্ৰী হাতে নিয়ে চাকরি বা কাজ না পেয়ে বেকার বসে রয়েছে এবং আর্থিক অনটনে ভুগছে কিন্তু তার হাতে রয়েছে বর্তমান যুগের একটি আধুনিক অস্ত্র স্মার্টফোন ও ইন্টারনেট কানেক্শন। সেই চাইলে তার এই আর্থিক অনটনের জীবন থেকে বেড়িয়ে একটি সুন্দর জীবন উপভোগ করতে পারে শুধু মাত্র অনলাইনে ঘরে বসে কাজ করে।

আজ আমি আপনাকে এমন একটা অনলাইন কাজ সমন্ধে পরিচয় করবো যার নাম প্রায় সকলে জানে Bloging .আজ আমি আপনাকে ব্লগিং সমন্ধে বিস্তারিত জানাবো। তার আগে আপনি যদি অনলাইন ইনকাম সমন্ধে আগ্রহী হোন এবং অনলাইন কাজে আপনার ক্যারিয়ার বানাতে চান, তাহলে একটা কথা আপনাকে সবসময় মাথায় রাখতে হবে – ধর্য ধরে মন দিয়ে ভালো করে কাজ করে যেতে হবে। আপনি 1-2 মাস কাজ করে ফল না পেয়ে পিছিয়ে গেলে হবে না, আপনাকে 6-8 মাস ভালো মতো কাজ করতে হবে। আমার গেরেন্টি রইলো আপনি ফল পাবেন। আপনি যদি ফল না পান তাহলে আমাকে কমেন্ট করুন। ধরুন, আপনি ধান চাষ করেছেন আপনি দুই মাস মতো ধানের চাষে কাজ করলেন তার পরে ধান গাছের পরিচর্যা বন্ধ করে দিলেন। তাহলে আপনি কি ফল পাবেন। হয়তো আপনি আপনি ফল পেলেন কিন্তু আপনি যদি ভালো করে সময় দিয়ে পরিচর্যা করতেন তাহলে আপনি ৩গুন্ বেশি ফল পেতেন। এতক্ষন আমি আপনাকে এটা বোঝাতে চাইলাম যে কোনো কাজে আপনি যদি সময় না দিতে পারেন তাহলে আপনি কোনো কাজে সফল (Sucess) হরে পারবেন না।

চলুন আবার আমাদের আসল বিষয়ে যাওয়া যাক, তার আগে আজ bloging এর কি কি বিষয়ে আলোচনা হবে তার একটু ধারণা দিয়ে দিয়–

  1. ব্লগিং কি ?
  2. কিভাবে আপনি আপনার ব্লগিং যাত্রা শুরু করবেন ?
  3. ব্লগিং শুরু করা জন্য কি কি প্রয়োজন ?
  4. ব্লগিং থেকে কিভাবে ইনকাম করা যায় ?

আরো পড়ুন: কি কি ভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায়।

  • ব্লগিং কি (What’s Bloging):

ব্লগিং হচ্ছে এমন একটা জিনিস, যেখানে আপনি আপনার নিজের অভিজ্ঞতা বা জ্ঞান লিখিত ভাবে অনলাইনে publish করতে পারেন অর্থাৎ ব্লগিং হচ্ছে অনলাইন diary যাতে আপনি আপনার অভিজ্ঞতা অনলাইনে লিখে রাখতে পারেন। আপনার এই লিখা যে- কেউ আপনার blog ওয়েবসাইটে গিয়ে পড়তে পারেন। যেমনঃ আপনি আমার ব্লগসাইটে এসে আমার ব্লগ পড়ছেন। যে ব্যাক্তি এই ব্লগ পাবলিশ করে তাকে Blogar বলে। যেহেতু এক্ষেত্রে আমি একজন ব্লগার। আপনিও আমার মতো একজন Blogar হতে পারেন তার জন্য পরের পর্ব তা পড়ুন।

  • কিভাবে আপনি আপনার ব্লগিং যাত্রা শুরু করবেন (How do you start your blogging journey):

আপনি যদি লিখতে ভালোবাসেন এবং যেকোনো বিষয়ে বা কোনো নিদির্ষ্ট বিষয়ে লিখার অভিজ্ঞতা রয়েছে, তাহলে আপনি নির্দ্বিধায় আপনার ব্লগিং যাত্রা শুরু করতে পারেন। আপনি আপনার লিখার অভিজ্ঞতা দিয়ে মাসিক টাকা ইনকাম করতে পারেন।

Bloging শুরু করার জন্য আপনাকে প্রথমে একটি বিষয় (Niche) পছন্দ করতে হবে, যাতে সেই বিষয়ের ওপর আপনি কোনো রকম বিরক্তি বোধ না করে অনায়েসে লিখতে পারেন। তারপরে আপনাকে আপনার bloging ওয়েবসাইট তৈরী করতে হবে Bloggr বা WordPress এর মাধ্যমে আপনি আপনার bloging ওয়েবসাইট বানাতে পারেন। আপনি যদি ব্লগিং try করার জন্য ব্লগিং করতে চান তাহলে আপনি Bloggr দিয়ে ব্লগিং শুরু করতে পারেন। অথবা আপনি যদি ভালো করে ব্লগিং করতে চান তাহলে WordPress দিয়ে আপনি ব্লগিং ওয়েবসাইট শুরু করতে পারেন। Bloggr এর তুলনায় WordPress এ নানা রকমের সুবিধা রয়েছে। WordPress এ প্লাগিং এর সাহায্যে আপনি আপনার ব্লগসাইট টাকে সুন্দর ভাবে সাজাতে পারেন কিন্তু এই সুবিধাটা Bloggr এ নেয়। ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগসাইটে বানানোর জন্য আপনাকে Hosting আর Domin কেনার জন্য কিছু টাকা খরচ করতে হবে। দেখুন আপনি আপনার পড়াশোনার জন্য অনেক টাকা খরচ করছে কিন্তু যেটাতে আপনার লাইফ সেট হবে সেটার জন্য কিছু টাকা খরচ তো করা যায়। আপনি যদি Namecheap এর মাধ্যমে Hosting আর Domin কেনেন তাহলে কম দামে ভালো মানের Hosting আর Domin পাবেন। পার্সোনাল ভাবে আমি Hostinger থেকে আমার সাইটের জন্য Hosting আর Domin কিনেছি। চাইলে আপনিও Hostinger থেকে আপনার সাইটের জন্য Hosting আর Domin Buy করতে পারেন।

  • ব্লগিং শুরু করা জন্য কি কি প্রয়োজন (What you need to start blogging):

আপনি যদি ভালো করে ব্লগিং শুরু করতে চান তাহলে কিছু জিনিস আপনার অত্যন্ত প্রয়োজন –

  1. Computar/ Laptop ( মোবাইল ফোনে ভালো করে কাজ হবে না, অনেক রকম সুবিধা হবে )
  2. Internet Conection
  3. একটি Gmail account
  4. Content
  5. Bank account
  • ব্লগিং থেকে কিভাবে ইনকাম করা যায় ( How to make money from blogging ):

ব্লগ থেকে ইনকাম করার বিভিন্ন রকমের রাস্তা রয়েছে। আপনার ব্লগসাইটে যখন প্রচুর ভিসিটর বা দর্শক আসবে তখন আপনার ওয়েবসাইট টিকে গুগল এডসেন্স দ্বারা মনিটাইজ করে, এডসেন্স এর কোড ব্লগের মধ্যে বসিয়ে Ads এর মাধ্যমে মাসিক ইনকাম করতে পারেন। আপনার ব্লগসাইটে যত বেশি দর্শক আসবে এবং Ads এ ক্লিক পড়বে ততো বাসি আপনি ইনকাম করতে পারবেন। এছাড়াও ব্লগসাইট থেকে Affiliate marketing , Sponsorship দ্বারা আরো ইনকাম করা যায়।

আরো পড়ুন: কিভাবে অনলাইনে ঘরে বসে ইনকাম করা যায়

আসা করছি আপনি Bloging সমন্ধে ধারণা পেয়েছেন। কোনো রকম প্রশ্ন থাকলে Coment করুন।

8 thoughts on “What is Bloging- Full information in Bangla”

  1. ধন্যবাদ ভাই ! আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ ! তবে…
    ভাই, এক্কেবারে শুরু থেকে একটি ব্লগ খোলার যত ধাপ আছে একটু কষ্ট করে যদি সুন্দর করে বলে দিতেন ভালো হতো ।
    যেমন,
    – এর জন্য কোন অ্যাপ নামাতে হবে ?
    – নামাতে তাহলে সেটার নাম কী ?
    – এরপর ব্লক খোলার নিয়ম সংক্রান্ত ধাপটি কীভাবে সম্পন্ন করব ?
    – ব্লগ লেখার জন্য ব্লগিং ওয়েবসাইট খুলতে হয়, নাকি ব্লগিং ওয়েবসাইট ছাড়াও ব্লগার হওয়া যায় ? ব্লগিং ওয়েবসাইট খুললে সফলতা কতটুকু, আর ব্লগিং ওয়েবসাইট না খুলে ব্লগিং করতে চাইলে সে ক্ষেত্রে সফলতা কতটুকু ?
    – নিয়মিত ব্লগ লেখার নিয়ম কী ? মানে প্রতিদিন ব্লগ লেখতে হয়, নাকি একদিন পরপর লেখলেও হয় ? প্রতিদিন লেখতে হলে সেক্ষেত্রে প্রতিদিন একটি করে লেখলে যথেষ্ট, নাকি প্রতিদিন একাধিক ব্লগ লেখতে হয় ?
    – এরপর গুগল এডসেন্স এর সাথে যোগাযোগ করার পদ্ধতি কী ? যোগাযোগের সেই ধাপটি একটু সবিস্তারে যদি জানতে পারতাম !
    ইত্যাদি প্রাথমিক ধাপ গুলো যদি একটু কষ্ট করে ক্লিয়ার করে দিতেন ভালো হতো !

    Reply
    • আপনাকে অনেক ধন্যবাদ ভাই, একটা সুন্দর কমেন্ট করার জন্য এবং একটা সুন্দর সাজেশন করার জন্য।
      আপনার এই অনুরোধ অনুযায়ী আমি খুব তাড়াতাড়ি পুরণ করার চেষ্টা করবো।
      Blogging সমন্ধে একটা full serise আর্টিকলে publish করবো।
      আপনারা এই ভাবে পাশে থাকুন। ধন্যবাদ🙏🙏

      Reply
    • ধন্যবাদ, Muhammad mazhar ভাই। আপনার অনুরোধ অবশ্যই রাখবো।blogging নিয়ে full সিরিজ পাবলিশ করবো। এই ভাবে পাশে থাকুন।
      আপনি যদি blogging শুরু করতে চান তাহলে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। আমরা blogger দের একটা টিম বানানোর চেষ্টা করছি। আপনিও আমাদের সঙ্গে যুক্ত হতে পারে 🙏🙏🙏.

      Reply

Leave a Comment